IMG 20240522 WA0009

যুক্তরাষ্ট্র থেকে হাকিকু ইসলাম খোকন : যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান সংগঠনের শূন্য পদ পূরণের নামে লাগামহীন পদ বাণিজ্য ও অসাংগঠনিক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে গত ১৯ মে ২০২৪, রোজ রবিবার বিকেল সাড়ে ৬টায় নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের ডাইভারসিটি প্লাজায় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী পরিবার এবং সহযোগী অংগ সংগঠনের উদ্যোগে এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।(খবর বাপসনিঊজ)

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ড. প্রদীপ রঞ্জন করের সভাপতিত্বে এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হাসিব মামুন ও সাংগঠনিক সম্পাদক মহিউদ্দিন দেওয়ানের যৌথ পরিচালনায় বিক্ষোভ-সমাবেশে নেতা-কর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন, রমেশ নাথ, শওকত আকবর রিচি, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আইরিন পারভিন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী, আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট শাহ মোঃ বখতিয়ার আলী, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মিসবাহ আহমেদ, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ফরিদ আলম, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এম এ করিম জাহাঙ্গির, ত্রাণ ও সমাজকল্যান বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য কায়কোবাদ খান, আশাফ মাসুক,শামসুল আবেদীন, খুরশেদ খন্দকার, আমিনুল ইসলাম কলিনস, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা আকতার হোসেন, খসরুল আলম, কফিল চৌধুরী, নিউইয়র্ক স্টেইট আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শেখ আতিকুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সদস্য আবদুল ওয়াহাব জোয়ারদার, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুব্রত তালুকদার, কানেক্টিকাট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা শ্যামল কান্তি চন্দ, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জেড এ জয়, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জামাল হোসেন, শাহ সেলিম, শেখ হাসিনা মঞ্চের’ সভাপতি জালালউদ্দিন জলিল, যুগম সমপাদক দেলওয়ার হোসেন মোল্লা, শফিকুল ইসলাম, জাহিদুল ইসলাম সেলিম ও আলাউদ্দিন প্রমুখ।

শূন্য পদ পূরণের নামে বাণিজ্য করণ ও দুর্নীতির অভিযোগে সিদ্দিকুর রহমানের পদত্যাগ দাবিতে নিউইয়র্কে বিক্ষোভ সমাবেশ
(ছবি: সংগৃহীত)

সভায় বক্তারা বলেন, ড. সিদ্দিকুর রহমান স্বৈরাচারী কায়দায় গত ১৩ বছর দল চালিয়েছেন। তিনি গঠনতন্ত্রের তোয়াক্কা করেন না। আওয়ামী লীগ সহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোকে ভেঙ্গে বিলীন করেছেন। তার স্ত্রীসহ মাত্র হাতে গোনা ৫/৭ জন লোক তার সাথে আছে। এমতাবস্থায় তিনি শূন্যপদ পূরণের নামে লাগামহীন পদ বাণিজ্য করে যাচ্ছেন। কার্যকরী কমিটির মেজরিটি সদস্যের অনুমোদন ছাড়া কমিটিতে কোন পদ পূরণের কোন ক্ষমতা গঠনতন্ত্র তাকে দেয়নি। তারা এ ধরনের কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন অতীতেও তার এরকম পদ-বাণিজ্য বৈধতা পায়নি, এবারও পাবে না।

বক্তারা আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ড. সিদ্দিকুর রহমানকে আর কোন সভা-সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না এবং আগামী সম্মেলন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। যেখানেই সিদ্দিক সেখানেই প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে বক্তারা হুশিয়ারি দিয়ে বলেন অবিলম্বে পদত্যাগ করুন না হয় ভবিষ্যতে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে। বিক্ষোভ সমাবেশের শুরুতে বাংলাদেশর অভ্যূদয়ের সকল গনতান্ত্রিক ও স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে নিহত শহীদান, ৫২এর মহান ভাষা আন্দোলন, ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ, “৭৫ এর ১৫ই আগস্ট সপরিবারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, ৩রা নভেম্বর জেল প্রকষ্ঠে নিহত জাতীয় ৪ নেতা, ২০০৪ এর ২১শে আগষ্টে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে দাড়িয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *